1. »
  2. স্বাস্থ্য

ভালুকায় যক্ষ্মার ওষুধ সংকট, চিকিৎসায় অনিশ্চিয়তা

নিজস্ব প্রতিবেদক রবিবার, ১০ নভেম্বর, ২০১৯ ০৬:৫২ পিএম | আপডেট: রবিবার, ১০ নভেম্বর, ২০১৯ ০৬:৫২ পিএম

ভালুকায় যক্ষ্মার ওষুধ সংকট, চিকিৎসায় অনিশ্চিয়তা

ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যক্ষ্মা রোগীদের ওষুধের সংকট দেখা দিয়েছে। এতে বর্তমানে হাসপাতাল থেকে প্রায় ৫শ রোগীর চিকিৎসা নেয়া অনিশ্চয়তায় পড়েছে। 

ভালুকার ডেমিয়ান ফাউন্ডেশনের কর্মকর্তারা বলেন, সরকারিভাবে ‍ওষুধ সরবরাহ কম থাকায় রোগীদের চাহিদা মোতাবেক ওষুধ দেয়া যাচ্ছে না। 

সূত্রে জানাযায়, ডেমিয়ান ফাউন্ডেশন নামে একটি এনজিও প্রতিষ্ঠান ১৯৯৫ সাল থেকে ভালুকা উপজেলায় যক্ষ্মা রোগীদের বিনামূল্যে ওষুধ ও চিকিৎসা সেবা দিয়ে যাচ্ছে। উপজেলায় ৩ শতাধিকেরও বেশি শিল্পপ্রতিষ্ঠান থাকায় এখানে কয়েক লাখ শ্রমিক ও তাদের পরিবারের লোকজন বসবাস করছে। তাই অত্র উপজেলায় যক্ষ্মা রোগীর সংখ্যাও বেশি। ১৯৯৫ সাল শুরুর দিকে পরীক্ষামূলকভাবে ডেমিয়ান ফাউন্ডেশন কাজ করার পর দেখা যায় এ উপজেলায় যক্ষ্মার প্রাদুর্ভাব বেশি। এরইমধ্যেই অত্র প্রতিষ্ঠান থেকে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা নিয়ে হাজার হাজার রোগী সুস্থ হয়েছেন। গত ২ মাস ধরে চাহিদা মতো ওষুধ সরবরাহ না থাকায় সীমিত আকারে আগন্তক রোগীদেরকে ওষুধ সরবরাহ করা হচ্ছে। পূর্বে ডাক্তারের ব্যবস্থাপত্র অনুযায়ী এক সাথে ২/৩ মাসের ওষুধ রোগীদেরকে দেয়া হতো। তদস্থলে বর্তমানে একজন রোগীকে ৩ দিনের ওষুধ দেয়া হচ্ছে। যেখানে ডেমিয়ান ফাউন্ডেশনের লোকজন বাড়ি বাড়ি গিয়ে ওষুধ পৌঁছিয়ে দেয়ার কথা। এখন রোগীরা নিজেরাই এসেই হাসপাতালে ভিড় জামাচ্ছেন ওষুধের জন্য। 

বর্তমানে হাসপাতালে যক্ষ্মা রোগের কোনো ওষুধ মজুত নেই। আশপাশের উপজেলা ও ব্র্যাক থেকে ম্যানেজ করে সীমিত আকারে রোগীদের চাহিদা মেটানো হচ্ছে। অতি শীঘ্রই ওষুধ সরবরাহ না করা হলে প্রায় ৫শ রোগীর চিকিৎসা সেবা নেয়া অনিশ্চয়তার মাঝে পড়বে। একজন রোগীকে যদি বাইরে থেকে ওষুধ কিনে খেতে হলে প্রতিদিন প্রায় একশ টাকা করে খরচ হবে। যক্ষ্মার এ সব ওষুধ বাইরে ফার্মেসিতে পাওয়া দুষ্প্রাপ্য। অনেক হতদরিদ্র রোগীরা বাইরে থেকে ওষুধ কিনে সেবন করতে পারবেন না। একজন যক্ষ্মা রোগীকে কম পক্ষে ৬ মাস সর্বোচ্চ ২ বছর পর্যন্ত একটানা চিকিৎসার নিতে হয়। যদি মাঝ খানে ওষুধ খাওয়া বাদ পড়ে যায় পুনরায় যক্ষ্মায় আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

ভালুকা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে দেখা হয় উপজেলার রাজৈ গ্রামে হতদরিদ্র যক্ষ্মা রোগী এলাহী মিয়া সাথে। তিনি গত ৩ মাস যাবত ওষুধ খাচ্ছেন। তিনি বলেন, ‘আমি মানুষের কাছ থেকে হাত পেতে গাড়ি ভাড়ার টাকা ব্যবস্থা করে ওষুধ নিতে এসেছি। আমার আসা যাওয়ার ভাড়াই লাগবে দুইশ টাকা হাসপাতাল থেকে তিন দিনের ওষুধ দেয়া হয়েছে। তিন দিন পর আবার কার কাছ থেকে ঋণদার করে টাকা নিয়ে হাসপাতালে আসবো। 

ডেমিয়ান ফাউন্ডেশনের ভালুকা টিভি এন্ড ল্যান্সপ্রোসি ইনচার্জ মোজাম্মেল হক জানান, সরকারিভাবে গত ৩ মাস যাবত ঠিক মতো ওষুধ সরবরাহ না করায় আমরা রোগীদেরকে ঠিক মতো সরবরাহ করতে পাচ্ছি না। আশাপাশের উপজেলা ও বিভিন্ন এনজিও থেকে ম্যানেজ করে রোগীদেরকে ওষুধ সরবরাহ করা হচ্ছে। আশা করছি কয়েক দিনে মাঝে ওষুধের সমম্যার সমাধান হয়ে যাবে।

ডেমিয়ান ফাউন্ডেশনের ময়মনসিংহের প্রজেক্ট ম্যানেজার জ্যোসনারা বেগম বলেন, ‘আগে ময়মনসিংহ ও কিশোরগঞ্জ জেলার এক সাথে ওষুধের চাহিদাপত্র দেয়া হতো। সবশেষ দুই জেলার ওষুধের চাহিদাপত্র আলাদাভাবে দেয়ায় বিলম্ব হওয়ায় জাতীয় যক্ষ্মা নিয়ন্ত্রণ কর্মসূচি থেকে ওষুধ সরবরাহ করতে পারেনি। বর্তমানে আমাদের বাফারস্টকও শেষে হয়ে গেছে। ভালুকা ওষুধের চাহিদা বেশি থাকায় আমি ব্র্যাক ও ফুলপুরসহ অন্যান্য উপজেলা থেকে ওষুধের ব্যবস্থা করে ভালুকায় পাঠাচ্ছি। 

গত ২৪ বছরের মাঝে কোনো সময়ই এ রকম ওষুধের সংকটে পড়েনি এখন কেন পড়লো? এ প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, তিন মাস অন্তর অন্তর জাতীয় যক্ষ্মা নিয়ন্ত্রণ কর্মসূচি থেকে আমাদের ওষুধ সরবরাহ করে থাকে। সর্বশেষ ময়মনসিংহ ও কিশোরগঞ্জ জেলার পৃথক পৃথকভাবে চাহিদাপত্র দেয়ায় সিস্টেমের জটিলতায় বিলম্ব হয়েছে। তাই সর্বশেষ ওষুধ আমরা উত্তোলন করতে পরিনি। আশা করছি, দুই এক দিনের মাঝে ওষুধের সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে।

আর্কাইভস সংবাদ

আ.লীগের জন্ম মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে: শেখ হাসিনা
আ.লীগের জন্ম মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে: শেখ হাসিনা
দুর্নীতির আসামিরা মাটির নিচে থাকলেও খুঁজে বের করতে হবে: হাইকোর্ট
দুর্নীতির আসামিরা মাটির নিচে থাকলেও খুঁজে বের করতে হবে: হাইকোর্ট
কেরানীগঞ্জে আগুন: দগ্ধ হয়ে আরও ৩ জনের মৃত্যু
কেরানীগঞ্জে আগুন: দগ্ধ হয়ে আরও ৩ জনের মৃত্যু
বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্কে ‘পকেট মাঙ্কি’ পরিবারে নতুন ২ অতিথি
বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্কে ‘পকেট মাঙ্কি’ পরিবারে নতুন ২ অতিথি
প্রথম ধাপে ১০ হাজার ৭৮৯ রাজাকারের তালিকা প্রকাশ
প্রথম ধাপে ১০ হাজার ৭৮৯ রাজাকারের তালিকা প্রকাশ
মহান বিজয় দিবসে আ.লীগের কর্মসূচি
মহান বিজয় দিবসে আ.লীগের কর্মসূচি
দ্বিতীয় দিনের বিক্ষোভে উত্তাল পশ্চিমবঙ্গ
দ্বিতীয় দিনের বিক্ষোভে উত্তাল পশ্চিমবঙ্গ
তরুণ সংগীতশিল্পী পৃথ্বী রাজ আর নেই
তরুণ সংগীতশিল্পী পৃথ্বী রাজ আর নেই
এবার চাঁদপুরে আযহারীর মাহফিল বন্ধ
এবার চাঁদপুরে আযহারীর মাহফিল বন্ধ
কীর্তনখোলায় লঞ্চের সঙ্গে সংঘর্ষে ডুবে গেছে কার্গো
কীর্তনখোলায় লঞ্চের সঙ্গে সংঘর্ষে ডুবে গেছে কার্গো
আন্তর্জাতিক চাপে মিয়ানমার
আন্তর্জাতিক চাপে মিয়ানমার
রাজাকারের তালিকা প্রকাশ রোববার
রাজাকারের তালিকা প্রকাশ রোববার
সেনাপ্রধানকে নিয়ে আদালতের রায়ে যা বললেন ইমরান
সেনাপ্রধানকে নিয়ে আদালতের রায়ে যা বললেন ইমরান
বুয়েটের ৯ ছাত্রকে হল থেকে আজীবন বহিষ্কার
বুয়েটের ৯ ছাত্রকে হল থেকে আজীবন বহিষ্কার
বিদ্যুতের দাম ২৩ শতাংশ বাড়ানোর প্রস্তাব পিডিবির
বিদ্যুতের দাম ২৩ শতাংশ বাড়ানোর প্রস্তাব পিডিবির
১০ বছর নাগাদ যুক্তরাজ্য ভেঙে যেতে পারে: জরিপ
১০ বছর নাগাদ যুক্তরাজ্য ভেঙে যেতে পারে: জরিপ
কম দামে পেঁয়াজ কিনে বেশি দামে বিক্রি করায় জরিমানা
কম দামে পেঁয়াজ কিনে বেশি দামে বিক্রি করায় জরিমানা
বাংলাদেশ ব্যাংকের নেতৃত্বে ব্যাংকিং কমিশন গঠন ফলদায়ক হবে না: টিআইবি
বাংলাদেশ ব্যাংকের নেতৃত্বে ব্যাংকিং কমিশন গঠন ফলদায়ক হবে না: টিআইবি
ট্রাম্পের অভিশংসন তদন্ত: আগামী সপ্তাহ থেকে গণশুনানি শুরুর ঘোষণা
ট্রাম্পের অভিশংসন তদন্ত: আগামী সপ্তাহ থেকে গণশুনানি শুরুর ঘোষণা
সিপিইসি নিয়ে মার্কিন উদ্বেগ নাকচ করল পাকিস্তান
সিপিইসি নিয়ে মার্কিন উদ্বেগ নাকচ করল পাকিস্তান
যোগদানের ৪ দিনের মাথায় টাকাসহ আটক সাবরেজিস্ট্রার
যোগদানের ৪ দিনের মাথায় টাকাসহ আটক সাবরেজিস্ট্রার
জাবি ছাত্রলীগ সম্পাদকের পদত্যাগ
জাবি ছাত্রলীগ সম্পাদকের পদত্যাগ
ক্রেডিটকার্ড ব্যবহারকারীদের সুখবর দিল বাংলাদেশ ব্যাংক
ক্রেডিটকার্ড ব্যবহারকারীদের সুখবর দিল বাংলাদেশ ব্যাংক
প্রথম আলো সম্পাদকের বিরুদ্ধে রাহাতের বাবার মামলা
প্রথম আলো সম্পাদকের বিরুদ্ধে রাহাতের বাবার মামলা
মামলা মোকাবেলা করতে জাতিসংঘ আদালতে যাচ্ছেন সুচি
মামলা মোকাবেলা করতে জাতিসংঘ আদালতে যাচ্ছেন সুচি
প্রধানমন্ত্রীকে পেয়ে ওরা ভালো খেলবে ভেবেছিলাম: সৌরভ
প্রধানমন্ত্রীকে পেয়ে ওরা ভালো খেলবে ভেবেছিলাম: সৌরভ
প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিয়েছে ‘বুলবুল’
প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিয়েছে ‘বুলবুল’
পরিচালক ফাহমির সঙ্গে মিথিলার অন্তরঙ্গ ছবি ভাইরাল
পরিচালক ফাহমির সঙ্গে মিথিলার অন্তরঙ্গ ছবি ভাইরাল
দুইদিনে ২৭ ফিলিস্তিনি আটক করল ইসরাইলি সেনারা
দুইদিনে ২৭ ফিলিস্তিনি আটক করল ইসরাইলি সেনারা
ট্রেন চালকের দক্ষতায় বাঁচলো শত প্রাণ
ট্রেন চালকের দক্ষতায় বাঁচলো শত প্রাণ